জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব ও বনপা'র সদস্য পদ স্থগিত সংক্রান্ত নোটিশের ব্যাখ্যা

জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের সম্মানিত প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন (বনপা)'র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বর্তমান সভাপতি শামসুল অলম স্বপন ১লা আগস্ট ২০১৬ সকালে অনলাইন প্রেসক্লাব ও বনপা'র সদস্য সংক্রান্ত প্রেস নোটিশে বলেন,
জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব ও বনপা'র পক্ষ থেকে সকল সদস্যকে জানানো যাচ্ছে, যে সকল অনলাইন নিউজ পোর্টাল তথ্যমন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেনি এবং যে সকল নিউজ পোর্টালে নিয়মিত নিউজ আপডেট করা হয় না সে সকল নিউজ পোর্টালের মালিকদের উভয় সংগঠনের সদস্য পদ স্থগিত করা হলো ।
তথ্যমন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনের আবেদিত রিসিভ কপি না দেখানো পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে।
ধন্যবাদসহ- 
শামসুল অলম স্বপন
প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক
জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব
প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বর্তমান সভাপতি 
বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন (বনপা)
মোবা : ০১৭১৬৯৫৪৯১৯
তাং ০১/০৭/২০১৬

এই নোটিশ কোন সদস্যকে লক্ষ করে নয় বা কাউকে ছোট করার জন্য নয়, এটি জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব ও বনপা সংগঠন ২টি কে উজ্জল করবে সরকার সহ সকলের কাছে। দুপুরে শামসুল অলম স্বপন ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলে সদস্যদের মাঝে সহজ ভাবে নোটিশের ব্যাখ্যার গুরুত্বপুণ্য তথ্য গুলি নিম্নে তুলে ধরলাম। সম্পন্ন সংবাদ টি পড়ার পর ও না বুঝলে ফোন করার জন্য অনুরোধ রইল, মনে রাখবেন একতাই শক্তি। (রনি, ০১৭২২১৫৮১৩০)।   
জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের সম্মানিত প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন (বনপা)'র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বর্তমান সভাপতি শামসুল অলম স্বপন উক্ত প্রেস নোটিশটির ব্যাখ্যা করে বলেন আমরা বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে অনলাইন সাংবাদিকদের অধিকার আদায় এর জন্য তাদের নিয়ে শুরু থেকে আন্দোলন করে আসছি। অনলাইন নিউজ পোর্টাল গুলোর সরকারী ভাবে নিবন্ধনের কর্মকাণ্ড সহজ করণ, প্রিন্ট মিডিয়ার মত সরকারী সুযোগ সুবিধা প্রদান, সরকারী বিজ্ঞাপণ ও অনলাইন সাংবাদিকদের স্বার্থ সংরক্ষণ বিষয় নিয়ে সরকার ও তথ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে আসছি। আমি, সহ আমাদের সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সবসমায় অনলাইন সাংবাদিকদের জন্য কাজ করে আসছি। আগামীতে ও করবো। কারন আমরা ও অনলাইনের সঙ্গে সংপৃক্ত। আমরা অপ সাংবাদিকতা করি না। আমরা দেশ ও জাতির কল্যাণে অনলাইন সাংবাদিকতার মাধ্যমে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদবিরোধী সংবাদ পরিবেশন ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবায়নে রূপ দিতে নিরলস ভাবে কাজ করছি।

সরকারের উদ্বর্তন কর্মকর্তাদের পরামর্শে তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন যারা এখন ও তথ্যমন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেনি তাদের কে আমরা সহযোগী সদস্য করবো। এবং তারা চাইলে সরকারের সঙ্গে তাদের নিবন্ধনের জন্য আবেদন এর বিষয়ে আমরা আলোচনা করে তাদের সহযোগিতা করবো। সরকার যেহেতু আমাদের দাবী গুলো বাতিল না করে চলমান কাজের মধ্যে রেখেছেন তাই আমরা ও সরকারের কাজের প্রতি সমর্থন জানিয়ে নীতিমালা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চাই।

শামসুল অলম স্বপন আরও বলেন আমাদের দাবী ছিল নাম মাত্র টাকায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধন, অনলাইন নিউজ পোর্টাল গুলোর সরকারী ভাবে নিবন্ধনের কর্মকাণ্ড সহজ করণ, প্রিন্ট মিডিয়ার মত সরকারী সুযোগ সুবিধা প্রদান, সরকারী বিজ্ঞাপণ ও অনলাইন সাংবাদিকদের স্বার্থ সংরক্ষণ। আমাদের দাবী আদায়ের বিষয়ে আমরা এখন ও আগের অবস্থানে। এখন ও এই দাবী সারা বাংলাদেশের অনলাইন সাংবাদিকদের প্রাণের দাবী। আমরা সরকারে সঠিক নিয়ম মেনে আমাদের সদস্যদের অধিকার আদায়ে কাজ করে যাব। অপ সাংবাদিকতা, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ কে আমরা প্রশ্রয় দিব না। তাই বলব আপনারা যারা এখন ও তথ্যমন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেন নি তারা তথ্যমন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে নির্দিষ্ট অধিদপ্তরে যোগাযোগ করুন।

জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব ও বনপা'র সিনিয়ার নেতৃবৃন্দর পরামর্শে তথ্যমন্ত্রণালয়ের উদ্বর্তন কর্মকর্তাদের আলোচনার পর ও গত ৩১ জানুয়ারী রোববারে সকালে বনপার প্যাডে, বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এ্যসোসিয়েশন (বনপা)'র পক্ষ থেকে প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শামসুল আলম স্বপন নিবন্ধন প্রক্রিয়াটি চলমান রাখার দাবি জানিয়ে তথ্য সচিব বরাবরে একটি আবেদন করেন। বনপার প্যাডে তথ্য সচিব বরাবরে আবেদনের পর তথ্য অধিদফতর থেকে সরকারি এক তথ্য বিবরণীতে জানানো হয়েছিল, অনলাইন গণমাধ্যমের সংশ্লিষ্ট সাংবাদিকগণের অনুরোধে অনলাইন নিউজ প্রকাশনার নিবন্ধন ফরম ও প্রত্যয়নপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ পর্যন্ত বর্ধিত করেছে সরকার। প্রথম বার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৫ সালের মধ্যে অনলাইন গণমাধ্যম নিবন্ধনের সময় দিয়ে ছিল সরকার।

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এ্যসোসিয়েশন (বনপা)'র সিনিয়ার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রোকমুনুর জামান রনি বলেন, সদস্য পদ স্থগিত সংক্রান্ত নোটিশটি সংগঠন দুটির সবার কাছে মানবাড়াবে নি:সন্দেহে এবং পরবর্তিতে সরকার আমাদের জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব ও বনপা'র দাবীকে গুরুত্ব দিবেন। তবে সদস্যদের জন্য সর্বনিম্ন ৩০ দিনের একটি সময় দিয়ে নোটিশ দিলে অনেক ভাল হতো। যদি ও আমাদের সিনিয়ার নেতৃবৃন্দ বলেছেন এটা করতে হয়েছে জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব ও বনপা'র সকল সদস্য'র ভালোর জন্য। সিনিয়র নেতৃবৃন্দ আরও বলেছেন তথ্যমন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনের জন্য যারা আবেদন করেনি তারা আমাদের সহযোগী সদস্য হবেন এবং আবেদন করলেই আবার সদস্য হবেন। তাই আমি আপনাদের প্রতি সমবেদনা জানাই এই নোটিশটির জন্য এবং সেই সঙ্গে আপনারা অনুগ্রহ করে তথ্যমন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেন। যাতে আমরা সবাই আবারও পূর্বের ন্যায় একসঙ্গে দাবী আদায় সহ সকল কাজ করতে পারি। আপনাদের যে কোন সহযোগিতায় আমাদের কে পাশে পাবেন।