বিস্তারিত সংবাদ

অনলাইন সাংবাদিক কল্যাণ তহবিল” বনপা ও জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের একটি মহতী উদ্যোগ

করোনা ভাইরাসের মহামারীতে যখন সারা বিশ্ব দিশেহারা, বাংলাদেশের মানুষ আতংক গ্রস্থ হয়ে গৃহবন্দী। দেশে ইতোমধ্যে করোনা আক্রান্ত  হয়ে  ৫১ জন চিকিৎসক, অর্ধশত পুলিশ সদস্য ১১ জন সাংবাদিকসহ ১৬৬১ জন মারা গেছেন ।

এক লাখের উপরে মানুষ আক্রান্ত ।  এই দূর্যোগে পুলিশ, চিকিৎসক, সাংবাদিক  সবচেয়ে বেশী ঝুঁকিতে । দুর্যোগকালে বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন “বনপা” ও জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাব তাদের সদস্য সাংবাদিকদের জন্য “অনলাইন সাংবাদিক কল্যাণ তহবিল” গঠন করেছে ।   বনপা ও জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের এটি একটি মহতী উদ্যোগ। যে সময় সরকারি ত্রাণ মেরে খাচ্ছে জনপ্রতিনিধি নামের কলংকরা । সে সময়  করোনা আক্রান্ত অসহায় সাংবাদিকদের  পাশে সাহার্য্যরে হাত বাড়ানো নি:সন্দেহে একটি মহতী উদ্যোগ।

এ ব্যাপারে বনপা’র সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব ইঞ্জি: রোকমুনুর জামান রনি বিজয় নিউজকে বলেন, দেশ ভয়াবহ সংকটের দিকে এগুচ্ছে । বিগত ৪ মাস ঘরে বসে থাকার কারণে মানুষ চরম অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে । বিশেষ করে অনলাইন সংবাদপত্রের সাথে যারা জড়িত তাদের আজ বড় দুর্দিন । বিষয়টি ভেবে   বনপা’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শামসুল আলম স্বপন ও জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক অধ্যাপক আকতার চৌধুরীর সাথে আলাপ করে আমরা “অনলাইন সাংবাদিক কল্যাণ তহবিল” গঠন করি । এ পর্যন্ত করোনাতে আক্রান্ত আমাদের ১২ জন সদস্যকে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেছি। ইন্শাল্লাহ এ সহযোগিতা অব্যহত থাকবে।

তহবিল কি ভাবে সংগ্রহ করা হচ্ছে প্রশ্নের জবাবে জনাব রনি বলেন, আমরা অন্য কারো কাছ থেকে কোন অর্থ সাহর্য্য নিচ্ছি না। আমরা অনলাইন সাংবাদিকদের অনলাইনে সাংবাদিকতার উপর প্রশিক্ষণ দিচ্ছি । প্রশিক্ষণার্থীদের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ ফি বাবদ  ৫০০/=টাকা  করে নিচ্ছি ( প্রশিক্ষণ খরচ বাদে যে টাকা থাকছে তা তহবিলে জমা করা হচ্ছে )  এবং  বনপা ও জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দের অনুদানের টাকা দিয়েই তহবিল গঠন করা হচ্ছে করোনা আক্রান্ত সাংবাদিকদের চিকিৎসার জন্য ।

প্রশিক্ষণার্থীরা কি সুবিধা পাচ্ছেন এ প্রশ্নের জবাবে জনাব রনি বলেন, প্রশিক্ষণ মানুষকে দক্ষ করে তোলে । পাশিপাশি আমরা প্রশিক্ষণার্থীদের অনলাইন সাংবাকিতার উপর হ্যান্ডনোট দিচ্ছি  এবং প্রশিক্ষণ শেষে সনদ পত্র প্রদান করা হবে ।


নিউজ